, আপডেটঃ

নোয়াখালীর রাজনীতির এপিঠ-ওপিঠ
কাদের মির্জা টার্গেট অপরাজনীতি,না মি. চৌধুরী?

নিজস্ব প্রতিবেদক নোয়াখালী টুয়েন্টিফোর
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারী ২২, ২০২১ ১২:০২ এএম


নোয়াখালী:বর্তমান সময়ে দেশের আলোচিত ব্যক্তি আব্দুল কাদের মির্জা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আবদুল কাদের মির্জার যে বক্তব্য ভাইরাল হয়, তিনি তাতে বলেছিলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিন-চারটি আসন বাদে তাদের অন্য এমপিরা পালানোর পথ খুঁজে পাবে না। নির্বাচনে মেয়র হওয়ার পরও তিনি বক্তব্য দেয়া অব্যাহত রেখেছেন।

স্থানীয় রাজনীতিতে তার বিরোধী অংশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এবং এমপি একরামুল করিম চৌধুরী। তার বিরুদ্ধেই মি. মির্জার নানা অভিযোগ।

একরামুল করিম চৌধুরীও প্রতিক্রিয়া তুলে ধরতে গিয়ে আব্দুল কাদের মির্জার ভাই আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকেও আক্রমণ করে বক্তব্য দিয়েছেন।

যদিও চৌধুরী ওবায়দুল কাদেরের ব্যাপারে বক্তব্য নিয়ে পরে তিনি ক্ষমা চেয়েছেন। কিন্তু একইসাথে তিনি কাদের মির্জার বক্তব্য নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

আওয়ামী লীগের এমপি একরামুল কাদের চৌধুরীর বক্তব্য হচ্ছে,একজন লোক আজকে এক মাস সাতদিন ধরে একই কথা বলে যাচ্ছে। এনিয়ে আমি কাদের ভাইকে (ওবায়দুল কাদের) যা জানানোর তা জানিয়েছি। এখন উচ্চপর্যায়ে কি সিদ্ধান্ত নেবে,সেটা তাদের ব্যাপার।

কিন্তু একটি জেলার কোন্দলকে কেন্দ্র করে উপজেলার একজন নেতার বক্তব্য নিয়ে দেশজুড়ে কেন আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে – আওয়ামী লীগের ভেতরেও এই প্রশ্নে নানা আলোচনা রয়েছে।

এখন মানুষের মনে অনেক প্রশ্ন আসলেই কি!কাদের মির্জা টার্গেট অপরাজনীতি? না একরামুল করিম চৌধুরী?
হঠাৎ করেই কেনইবা নোয়াখালীর রাজনীতি নিয়ে আলোচনায় নেমেছেন কাদের মির্জা এতদিন তিনি কোথায় ছিলেন?

দলটির সিনিয়র নেতাদের অনেকে মনে করেন,আব্দুল কাদের মির্জা তাদের দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই হওয়ার কারণেই তার বক্তব্য নিয়ে তোলপাড় চলছে। দলটির তৃণমূলের নেতাদের অনেকে বলেছেন,বক্তব্যের বিষয়বস্তুও বড় কারণ বলে তারা মনে করেন।

অনেকে মনে করেন,কাদের মির্জার বক্তব্যে নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙে পড়া এবং দুর্নীতির চিত্র যেমন এসেছে, তেমনি নোয়াখালী আওয়ামী লীগের কর্মকাণ্ড ও দলটির সাংগঠনিক চেহারা ফুটে উঠেছে।

হঠাৎ করে আলোচনায় এলো আবদুল কাদের মির্জাকে দলীয় কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি এবং বহিষ্কারের সুপারিশ নিয়ে বিবাদে জড়িয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুল আনম সেলিম এবং সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী। জেলা সভাপতি সেলিম গণমাধ্যমকে কাদের মির্জার অব্যাহতি ও বহিষ্কারের সুপারিশ প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেও একরামুল করিম চৌধুরী অব্যাহতি এবং বহিষ্কারের সুপারিশ বহাল বলে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লাইভে এসে জানিয়েছেন।

একরামুল করিম চৌধুরী লাইভে এসে বলেন, নোয়াখালীবাসী আসালামুআলাইকুম। সেলিম ভাই ঢাকা থেকে এসে বলল মির্জার বিরুদ্ধে একটা ব্যবস্থা নেয়া দরকার। সে মোতাবেক আমরা মির্জার বিরুদ্ধে একটা অবস্থান নিছি। এখন ইয়েতে বলতেছে এটা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। কিন্তু আমি আপনাদের বলতে পারি আমার জানা মতে, আমি জানি না, কারণ একটা লোক অপরাধী যে নোয়াখালীতে না, সারাদেশে আওয়ামী লীগকে ছোট করেছে; তাকে তো ছাড়া যায় না। তার বিরুদ্ধে আমরা অবস্থান নিয়েছি। আমার সভাপতি কী অবস্থানে আছেন জানি না, ওনি নাকি বলতেছেন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

তিনি সভাপতিকে নীতিহীন আখ্যা দিয়ে বলেন,ওনার অবস্থান, উনি আমাকে দিয়ে নির্দেশনা করল পরে উনি অবস্থান থেকে সরে দাড়াঁলো উনিও নীতিগতভাবে নীতিহীন হয়ে গেল। আমি আপনাদেরকে বলি, ওনার অব্যাহতি আমরা অব্যাহত রেখেছি। বিভিন্ন জায়গায় সেসব কথাবার্তা হচ্ছে এগুলো ঠিক না। কারণ এ ধরনের লোককে দলের অবস্থানে রাখা উচিত না। তার অব্যাহতিটা বহাল রইল। সকলকে ধন্যবাদ। আসালামুআলাইকুম।

এ ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে জেলা আওয়মী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুল আনম সেলিম বলেন,আমি নীতিহীন, উনি নীতিবান হয়ে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। রাজনীতি ওনাদের ব্যবসা, আমি একরামুল করিম চৌধুরীর সঙ্গে একমত নই। প্রধানমন্ত্রী এসব ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন।

উল্লেখ্য,শনিবার সন্ধ্যায় কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে সংগঠনের সব কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি ও বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়। কিন্তু দুই ঘণ্টা পর তা প্রত্যাহার করেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এ এইচ এম খায়রুল আনম সেলিম।

তিনি গণমাধ্যমকে বলেন,নোয়াখালী আওয়ামী লীগে শৃঙ্খলার স্বার্থে আদেশটি প্রত্যাহার করা হলো।

নোয়াখালীর রাজনীতি নিয়ে এসব বক্তব্য এসেছে,কিন্তু দেশের অন্য এলাকার আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক পরিস্থিতির সাথে সাদৃশ্য থাকায় তা আওয়ামী লীগকেও নাড়া দিয়েছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করেন।

এছাড়াও গত শুক্রবার বিকেলে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট পূর্ব বাজারে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে সংবাদ সংগ্রহের সময় গুলিবিদ্ধ হন সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির। শনিবার রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির নিহতের ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ। এ সময় এই হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে সমাবেশ করা হয়।

এছাড়াও মুজাক্কিরের খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে জেলার কোম্পানীগঞ্জ ও চাটখিলসহ বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা।

আব্দুল কাদের মির্জা তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে জানান,নোয়াখালীর রাজনীতির চলমান সংকট নিরসনে আমাদের সকলের আস্থার শেষ ঠিকানা জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন  করে আমাদের ইতঃপূর্বে ঘোষিত সকল ধরনের কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নিলাম।

আশাকরি জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আমাদের নেতা  জনাব ওবায়দুল কাদের সাহেবের হস্তক্ষেপে সকল সমস্যার সমাধান অতিশীঘ্রই হবে।

মন্তব্য করুন:

মুল পাতার খবর

এমপি ইব্রাহীমের প্রচেষ্টায় শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ

বিদ্যালয় ভবন নিয়ে শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন নতুন ভবনে হবে পাঠদান।…

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হওয়ার পথে আগা খান

ঢাকা-১৪ আসনের প্রার্থী ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের আগা খান মিন্টু বিনা…

চিত্রনায়িকা পরীমনি কি ফেঁসে যাচ্ছেন? (ভিডিও)

চিত্রনায়িকা পরীমনিকাণ্ডে ঢাকা বোট ক্লাবের ভেতরের আরও একটি ভিডিও ছড়িয়ে…

ঈদে আসছে ‘লিডার, আমিই বাংলাদেশ’

৬০ ভাগ শুটিং শেষ হয়েছে বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া লিমিটেড এর চলচ্চিত্র…

এস কে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য ২৭ জুন

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে…

টিকা কিনতে বাংলাদেশকে ৭৯৯০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে এডিবি

করোনাভাইরাসের টিকা কেনার জন্য বাংলাদেশকে সাত হাজার ৯৯০ কোটি টাকা…

কঠোরভাবে লকডাউন পালন না করলে বিপর্যয়ের শঙ্কা

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. রুবেদ আমিন বলেছেন, দেশে করোনাভাইরাসের…

রামগঞ্জে নির্যাতনের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে কলেজ ছাত্রী

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলা লামচর ইউনিয়নের কালিকাপুর হেতিমপুরে চাচা মমিন উল্যার…

খুলনায় ক’রোনাভাইরাসে রেকর্ড মৃত্যু

খুলনা বিভাগে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩২ জন মারা গেছে।…

সম্পাদক : ইসমাইল হোসেন
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | Noakhali24.net
Privacy Policy | Terms and Conditions
Developed By: Link Bangla
Contact Us | About Noakhali24.net
অফিস: ৭৪ কাকরাইল ভূইঞা ম্যানশন, রমনা, ঢাকা ১০০০
ফোন: +৮৮ ০১৭৩০ ৭১৮১৭১
Email: noakhali24.net@gmail.com
বিজ্ঞাপন: noakhali24.net@gmail.com